অপরাধ ও দূর্ঘটনাপ্রশাসনলিডস্বাস্থ্য ও চিকিৎসা

সংবাদপত্রে সংবাদ প্রকাশের পর মন্ত্রীর নির্দেশে হাসপাতাল পরিদর্শন

মোঃ সাজ উদ্দিন সাজু, সিলেট জেলা প্রতিনিধি:

সিলেট জেলার “জৈন্তাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অভ্যন্তরীণ পরিবেশের বেহাল দশা, কর্তৃপক্ষ নিরব” শিরোনাম সহ বিভিন্ন শিরোনামে স্বচিত্র সংবাদ প্রকাশের পর বিষয়টি সিলেট-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে মন্ত্রীর নির্দেশে তাৎক্ষনিক জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শন করেন জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল আহমদ।

২২ জানুয়ারি (শনিবার) সকাল ১১:০০ ঘটিকায় জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শনে যান কামাল আহমদ৷ এসময় উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মোঃ সালাহউদ্দিন মিয়া, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মমি দাস, নিজপাট ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আতাউর রহমান বাবুল, জৈন্তাপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি নূরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন মোঃ হানিফ, যুগ্ম সম্পাদক রেজওয়ান করিম সাব্বির, জৈন্তাপুর পূর্ব বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মোঃ সুলেমান মিয়া উপস্থিত ছিলেন ৷

পরিদর্শন কালে প্রকাশিত সংবাদের মিল দেখা মিলেছে৷ তাছাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বিভিন্ন অংশ অপরিস্কার দেখা যায়৷ চেয়ারম্যান বলেন দ্রুত সময়ের মধ্যে হাসপাতাল এরিয়াকে আবর্জনা মুক্ত করতে হবে৷ পরিদর্শকালে হাসপাতালে জনবল কম থাকার বিষয়টি তুলে ধরা হয়৷ পানিজনিত কারণে হাসপাতালের বেশির ভাগ ওয়াশ ব্লকগুলো আয়রন জমে নোংরা হচ্ছে৷ হাসপাতালে বিভিন্ন কারণ নিয়ে কথা বলেন কর্মকর্তারা। গভীর নলকুপ না থাকায় যে পানি ব্যবহার করা হচ্ছে তা হতে আয়রন সৃষ্টি হয়ে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে৷ এছাড়া নতুন বিল্ডিংয়ের কাজ নিম্নমানের হওয়ার কারণে পানির টেপ নষ্ট হয়ে পানি পড়ে এগুলো নষ্ট হচ্ছে দেখা যায়৷

উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল আহমদ বলেন, হাসপাতালে অভ্যন্তরে বিশাল একটি পুকুর রয়েছে৷ সেই পুকুরটি পূর্ণ খননের মাধ্যমে গভীর করা হলে আয়রণ মুক্ত পানি পাওয়া যাবে৷ পাম্পের সাহায্যে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরী কাজে ব্যবহার করা যাবে বলে তিনি জানান৷ তিনি হাসপাতালের জনবল হতে শুরু করে বিভিন্ন সমস্যাগুলো মন্ত্রী মহোদয়ের সাথে আলোচনা করে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বলবেন বলে জানান। তিনি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে আবর্জনা মুক্ত রাখার জন্য অনুরোধ করেন৷ হাসপাতাল কমিটির বৈঠক নিয়মিত করার আহবান জানান৷

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
error: Alert: Content selection is disabled!!