অপরাধ ও দূর্ঘটনাঢাকা

যাত্রাবাড়িতে হাজারো মানুষের টাকা আত্মসাৎ করে পালিয়েছেন সৃষ্টি ট্রেনিং সেন্টার মালিক মিজানুর রহমান রাসেল

আসমা আক্তার, যাএাবাড়ি প্রতিনিধিঃ

যাত্রাবাড়িতে উত্তরা ব‍্যংকের পার্শে জনি টাউয়ার এর চতুর্থ তলায় সৃষ্টি ট্রেনিং সেন্টার এর মালিক হাজারো মানুষের টাকা আত্মসাত করে গতকাল (৯|৭|২১ )পালিয়েছেন। শুধু মাত্র একটি নামই ছিলো না তার। বিভিন্ন এলাকায় পরিচিত ছিলেন বিভিন্ন নামে।তিনি যাত্রাবাড়ি ধলপুর এলাকায় হাবিব নামে পরিচিত ছিলো,যাত্রাবাড়ি টনি টাউয়ার এর পার্শে একটি বাসায় নিতি ভাড়া থাকতেন সেখানে তার নাম ছিলো কাউসার।সৃষ্টি ট্রেনিং সেন্টার এ তার নাম ছিলো মিজানুর রহমান রাসেল। সৃষ্টি ট্রেনিং সেস্টার অনেকগুলো বিভাগ নিয়ে কাজ করেছে ১.কম্পিউটার ট্রেনিং

সেন্টার,২.সেলাই প্রশিক্ষন,৩.ব্লক বাটিক,৪.হেলথ কেয়ার,৫.সমবায় সমিতি ইত‍্যাদি।সকল স্টুডেন্টদের কাছ থেকে ভর্তির জন‍্য টাকা এবং চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করে পালিয়েছেন তিনি। ঘটনাস্থলে গিয়ে জানা গেছে এই বিল্ডিং এর মালিক কোনো প্রকার জাতিয় পরিচয় পত্র,ছবি ছাড়াই তাকে অফিসের জন‍্য এই ফ্লোর ভাড়া দিয়েছেন।বাড়িওয়ালা কে জিজ্ঞেস করলে প্রশ্নের উত্তরে বলেন তিনি মাত্র ৫০০০০ টাকা এডভান্স নিয়ে এই ফ্লোর তাকে ভাড়া দিয়েছেন।অথচ মিজানুর রহমান তার সমস্ত কর্মচারিদের বলেছেন তিনি ১৫০০০০০ টাকা এডভান্স দিয়েছেন এই অফসটির জন‍্য। বৃহস্পতিবার ৮|৭|২১ তারিখেও তার অফিস খোলা ছিলো সমস্ত কর্মচারিরা কাজ করেছেন।গতকাল শুক্রবার (৯|৭|২১)তিনি তার কিছু কিছু কর্মচারির নাম্বারে মেসেজ পাঠিয়েছেন অফিসে ঝামেলা হয়েছে ১৫ তারিখ পর্জন্ত অফিস বন্ধ থাকবে। কাল থেকে তার ফোনে সমস্ত কর্মচারিরা ফোন করে বন্ধ পাচ্ছে।অফিস এসে অফিস বন্ধ পায়।এক পর্যায়ে তার বাসায় গেলে সকলে দেখতে পাই তার ঘরে একটি বিছানার চাদর ছাড়া আর কিছুই অবষিস্ট নেই।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
error: Alert: Content selection is disabled!!