অপরাধ ও দূর্ঘটনাপ্রশাসনসারাবাংলা

নিখোঁজের তিনদিন পর মিলল ইজিবাইক চালক আলামিনের লাশ

মাগুরা প্রতিবেদক

মাগুরা শালিখা উপজেলার হরিশপুর গ্রামের সন্তান আলামিন(২১) পিতা মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান। জানা যায় আলামিনের পারিবারিক সূত্রে গত ৯.১২.২১ তারিক আলামিন দুপুর ২ টার দিকে ইজিবাইক নিয়ে ভাড়া নেওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে সিমাখালীর দিকে রওনা করেন। প্রায় প্রতিদিনেই তিনি একই সময় বাড়ি থেকে বের হন। আলামিন নামের এই তরুন যুবক। আবার প্রতিদিনের মত রাতে বাসায় ফিরেন সন্ধ্যা ৭ টা অথবা সর্বোচ্চ রাত ৮ টার দিকে। কিন্তুু কে যানে এটাই আলামিনের জীবনের শেষ চলে যাওয়া। আলামিনের পিতা মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন। বৃহস্পতিবার রাত যখন ৯টা ২০ মিনিট সময় পার হয়ে যায় তখনো আলামিন বাসায় আসে নাই। পরে তার মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করার চেষ্টা করি কিন্তুু ফোন বন্ধ জানায়।এবং বার বার ফোন করে ব্যাথ হয়। এবং আমাদের মনে এক প্রকার সন্দেহ সৃষ্টি হয়। তার পর আমরা আমাদের আত্মীয় স্বজনদের কাছে ফোন করি আলামিনের বিভিন্ন বন্ধুদের কাছে ফোন করি।এবং রোডের অন্য অন্য ইজিবাইক চালকের কাছে খজ নিয়ে থাকি। পরে রাজু নামে একটা ইজিবাইক চালকের কাজ থেকেই জানা যায় আমি শালিখা টেকের বাজার থেকে আলামিন কে দেখতে পাই এবং জিজ্ঞেস কোথায় জান উত্তর দেন হাগড়ার দিকে এসময় তার ইজিবাইকে দুটি ছেলে ও একটা মেয়ে কে দেখতে পাই। সর্বশেষ এই খবর পেয়ে চারিদিকে খজ নেওয়া শুরু করি আমারা। তার পর একপর্যায় খবর আসে গত ১০.১২.২১ রোজ শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে হারিয়ে যাওয়া আলামিনের ইজিবাইকটি যশোর চাচড়ার মোড় নাম একটা স্থানে পাওয়া যায়।
আলামিনের বাবার খালা নাম মোছাঃ জাহানারা বেগম যশোর খজ নিয়ে পরে রাস্তায় পাশে পড়ে থাকা ইজিবাইকটি চিন্তে পারেন। তার পর যশোর চাচড়া পুলিশ ফাড়ি ইজিবাইকটি জব্দ করে।এসময় ইজিবাইকটির ব্যাটারি ও দুইটি চাকা নাই বলেন জাহানারা বেগম। ইজিবাইকের খজ মিললেও মিলে না চালক আলামিনের খজ।পরে আলামিনের বাবা তার নিজ থানায় মৌখিক এভাবে একটা অভিযোগ জানায়। তার পর থানা ইনচার্জ জনাব( তারক বিশ্বাস) নিজে আলামিনের বাড়িতে এসে এ ব্যাপারে সব তথ্য নেন। তার পরের দিন স্থানীয় জনগণ সকালে ১০টি মোটর বাইক নিয়ে খজ নিতে বেরিয়ে জান উদ্দেশ্য আলামিন পাবার। একপর্যায়ে বাঘার পাড়া থানা এরিয়া বধুইপুর গ্রামে একটা রাস্তায় যাওয়ার সময় দেখে অনেক লোকজন জিজ্ঞেস করি এখানে কি হয়েছে বলে একটা লাশ পাওয়া গেছে। তার পর দেখে আমাদের আলামিনের লাশ। সনাক্ত করে আলামিনের কাকা তরিকুল ইসলাম। এ খবর পেয়ে যশোর ডিবি ও বাঘারপাড়া থানার ইনচার্জ জনাব ফিরোজ হোসেন ছুটে আসেন ঘটনাস্থলে।

উক্ত বিষয়ে আলামিনের বাবা মোস্তাফিজুর বাঘারপাড়া থানায় একটা অভিযোগ পেরন করেন।এবং উক্ত অভিযোগে বাঘারপাড়া থানার ইনচার্জ জনাব ফিরোজ হোসেন বলেন। অভিযোগের ভিত্তিতে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে প্রত্যক্ষদর্শীদের আইনের আওতায় আনা হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
error: Alert: Content selection is disabled!!