নগরজীবনসারাবাংলা

দৈনিক আলোচিত কন্ঠ পএিকার প্রকাশক রবিউল ইসলাম রুবেলের মাস্ক বিতরণ কর্মসূচি

এম এ হানিফ রানা, স্টাফ রিপোর্টার

করোনা ভাইরাসের পাদুর্ভাবের কারনে বর্তমানে সমগ্র বাংলাদেশে চলছে একটানা ১৪ দিনের কঠোর লকডাউন। ২৩ জুলাই থেকে শুরু হয়ে ৫ আগস্ট পর্যন্ত ঘোষিত লকডাউন পালন করছে বাংলাদেশ। স্বাস্থ্য বিধি মানতে বাধ্য করা হচ্ছে কঠোরভাবে। এবং জনসচেতনতা বাড়াতে নেয়া হয়েছে নানান প্রদক্ষেপ। এই সামাজিক কার্যক্রমে যে যেভাবে পারছেন এগিয়ে আসার চেষ্টা করছেন। তেমনি বহুল প্রচারিত জাতীয় দৈনিক আলোচিত কন্ঠের প্রকাশক রবিউল ইসলাম রুবেলের মাস্ক বিতরণ কর্মসূচিতে স্বাস্থ্য সচেতনতার পাশাপাশি মানুষের মাঝে করোনা ভাইরাস সচেতনা বার্তা পৌছে দিয়েছে।
তিনি নিজ গ্রাম ঠাকুর গায়ের প্রায় ১০০০ মানুষের মাঝে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরন করেন। এবং সকলকে স্বাস্থ্য ঝুকির বিষয়ে অবগত করেন এবং সরকারি বিধি নিষেধ মানার ব্যাপারে তাগিদ দেন। তিনি মাস্ক বিতরণকালে সকলকে বলেন আপনারা নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখার চেস্টা করবেন। আপনি আক্রান্ত মানে কিন্তু আপনার ক্ষতি করা নয়, আপনার দ্বারা আপনার সন্তান, মা বাবা,ভাই বোন বা এলাকাবাসিও আক্রান্ত হতে পারে। হাচি কাশি দেওয়ার সময়ও সাবধানতা অবলম্বন করবেন। জ্বর, ঠান্ডা, কাশি,শরীর ব্যাথা সহ গলা ব্যাথা দেখা দিলে নিজেকে সকলের কাছে থেকে দূরত্ব করে রাখবেন। এবং করোনা টেস্ট করাবেন যত দ্রুত সম্ভব। কারন বর্তমানে করোনা ভাইরাসের আক্রমণ কয়েকগুন বেশি বেড়ে গেছে। তাই সকলেই সচেতন হবেন। অযথা ঘুরাফেরা করবেন না। নিয়মিত মাস্ক ব্যবহার করবেন। নিজে সুস্থ থাকুন এবং অন্যকেও সুস্থ রাখায় সচেষ্ট হোন তবেই সুস্থ থাকবে বাংলাদেশ।
এসময় মুঠোফোনে দৈনিক আলোচিত কন্ঠের প্রকাশক রবিউল ইসলাম রুবেলের প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা তো করোনাকে আটকাতে পারবো না, যেহুতে তার বিস্তার ব্যাপক ভাবে প্রসারিত হয়ে গেছে। তবে সকলেই যদি সরকারি ঘোষিত স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলি এবং একে অপরকে সচেতন করি তবে হয়তো আক্রান্তের সংখ্যা অনেক কমিয়ে আনতে পারবো। আর কমে আসলে একসময় করোনা মুক্ত বাংলাদেশ আবারও দেখতে পাবো ইনশাআল্লাহ। তাছারা সকলে মাস্ক পরিধান করতে উৎসাহিত করা এবং করোনা সম্পর্কে সচেতন করাই ছিলো মূল লক্ষ। আশা করি সকলেই বিষয়গুলো মেনে চলবেন এবং করোনা মোকাবিলা করতে সক্ষম হবেন।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
error: Alert: Content selection is disabled!!