সারাবাংলা

দুটি পা কাঁটা অসহায় রিপন বাড়ি ফিরলেন হাসি মুখে

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার কান্দাপাড়া মন্ডলপাড়া আখালিয়া মন্ডলের ছেলে রিপন। এক সময় ভাল ছিল দিনমজুরের কাজ করতো মাটি কাটার সময় পায়ে বিষাক্ত কিছু লেগে তার দুটি পায়ে পচন ধরে পরবর্তীতে চিকিৎসকের পরামর্শে তার দুটি পা কেটে ফেলতে হয়।

বর্তমানে সে পঙ্গুত্ব অবস্থা জীবনযাপন করছেন।

বিষয়টি নজরে আসে মানবতা কর্মী রক্তযোদ্ধা পুলিশ সদস্য শামীম রেজার। পরে বিষয়টি তিনি বিষয়টি মানবতার ফেরিওয়ালা মামুন বিশ্বাস ও সংগঠন সহকর্মী ইসমাইল ও আব্দুর রহিমকে জানান। তারপরেই অসহায় রিপনকে সহযোগিতার জন্য কাজ শুরু করেন তারা।

তারই ধারাবাহিকতায় আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে পুলিশ সুপার জনাব হাসিবুল আলম, বিপিএম এর মাধ্যমে পঙ্গু রিপনকে প্যাডেল হুইলচেয়ার, এক বস্তা চাল, শার্ট-লুঙ্গি, সোয়েটার ও নগদ ১২০০ টাকা তুলে দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে মানবসেবক মামুন বিশ্বাস বলেন, আমার কাছে ছিল ১৯ হাজার ২৮২ টাকা ও রক্তযোদ্ধা পুলিশ সদস্য শামীম রেজা ভাইয়ের কাছে ১৬০০ টাকা ছিল। সেই টাকা দিয়েই আমরা এই ভাইয়ের জন্য সহযোগিতার ব্যবস্থা করি। সেই সাথে তিনি সকল ফেসবুক বন্ধুদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, আপনাদের পাঠানো টাকা দিয়ে রিপনকে প্যাডেল হুইলচেয়ার, পোশাক ও খাদ্যসামগ্রী তুলে দেওয়া হলো।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপার হাসিবুল আলম, বিপিএম, ডিআই১ জেলা বিশেষ শাখা মিজান সরকার, ডিবি ইনচার্জ খোকন চন্দ্র সরকার, ডিবিসি নিউজের জেলা প্রতিনিধি রিফাত রহমান প্রমুখ।

পরে দুটি পা কেটে ফেলা পঙ্গু রিপন নতুন পোশাক পড়ে,
প্যাডেল হুইলচেয়ারে বসে, বস্তাভর্তি চাল ও মুখে তৃপ্তির হাসি নিয়ে ফিরলেন বাড়ী। যাওয়ার সময় তার মুখে ছিলো কৃতজ্ঞতার এক অনন্য ছাপ।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
error: Alert: Content selection is disabled!!