অপরাধ ও দূর্ঘটনাসারাবাংলা

গাজীপুরে সালনা দেশীপাড়া এলাকা থেকে মা মেয়ের গলা কাটা লাশ উদ্ধার

এম এ হানিফ রানা, স্টাফ রিপোর্টার

গাজীপুর মহানগরের ১৯ নাম্বার ওয়ার্ডের সালনা দেশীপাড়া নামক এলাকা থেকে মা-মেয়ের গলা কাটা লাশ উদ্ধার করেছে সদর মেট্রোথানা পুলিশ। হত্যাকান্ডের শিকার মা ফেরদৌসি বেগম (২৮) ও মেয়ে তাছফিয়ার বয়স (৫)। নিহতদের বাড়ী কালীগঞ্জ উপজেলা জাংগালিয়া ইউনিয়নের বরাইয়া বেপারী বাড়ী এলাকায়। নিহত দুই সন্তানের জননী ফেরদৌসি বেগম বছরউদ্দিনের মেয়ে ও তাছফিয়া ঠাকুরগাঁও এলাকার গাড়ী চালক জয়নাল আবেদীনের মেয়ে।
নিহতের বড় ভাই ইজ্জত আলী বেপারী জানান, ফেরদৌসির ১৩-১৪ বছর পূর্বে ঠাকুরগাও এলাকার গাড়ি চালক জয়নালের সাথে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পর সে তার স্বামীকে নিয়ে ঢাকায় থাকতো। তারে গর্ভে হাফসা ও তাসফিয়া নামে দুটি মেয়ে জন্ম হয়। পরে তার প্রথম স্বামীর সাথে বনিবনা না হওয়ায় সে তার বাপের বাড়িতে চলে যায়। এদিকে স্বামীকে ছেড়ে আসলেও প্রথম স্বামী তাকে ভরনপোষণ করতেন। পরবর্তীতে রং নাম্বারে মোবাইল ফোনে গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার লোহাগাছিয়া গ্রামের রবিউলের সাথে প্রেমে (পরোকীয়ায়) জড়িয়ে যায়। পরে আনুমানিক দেড় বছর আগে সে রবিউলকে বিয়ে করে আগের স্বামীর দুই সন্তানকে নিয়ে মহনগরের হাড়িঁনাল এলাকায় ভাড়াঁ বাসায় থাকত এবং গাজীপুর চৌরাস্তায় একটি এনজিওতে চাকরী করতো।
এদিকে ঘটনার পর থেকে ২য় স্বামী রবিউল পলাতক রয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

স্থানীয়রা জানান, ঘটনাস্থলের পাশের একটি ভবনের কেয়ার টেকার রাত আনুমানিক ৭টার দিকে প্রথমে মা-মেয়ের লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। পরে বিষয়টি স্থানীয়দের মাধ্যমে পুলিশে খবর দেয়। বুধবার রাত ১১ টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে গাজীপুর সদর মেট্রো থানা পুলিশ মা-মেয়ের গলা কাঁটা লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। পরে নিহতদের লাশের ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন।
স্থানীয়দের ধারণা অন্যকোন স্থান থেকে হত্যা করে লাশ এখানে ফেলা হয়েছে। হত্যাকান্ডের শিকার মায়ের পড়নে ছিল খয়েরী রংয়ের বোরখা এবং মেয়ের গায়ে কালো রংয়ের জামা।
হত্যাকান্ডের ঘটনা নিশ্চিত করে ১৯ নাম্বার ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তানভীর আহমেদ জানান, বিষয়টি শুনতে পেয়েছি। তবে তাদের পরিচয় নিশ্চিত হতে পারিনি। তার ধারণা অন্য কোন স্থানে হত্যা করে লাশ এখানে ফেলে গেছে দুর্বৃত্তরা।
খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ দুটি উদ্ধার করে। নিহতদের গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে দুর্বৃত্তরা তাদের গলা কেটে হত্যা করেছে। বিষয়টি তদন্তকরে দেখা হচ্ছে এবং এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
error: Alert: Content selection is disabled!!