প্রশাসনব্রেকিংলিড

গাজীপুরের পুলিশ সুপার এসএম শফিউল্লাহ্ বিপিএম একটানা ৪র্থ বারের জন্য ঢাকা রেঞ্জের “শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার” নির্বাচিতঃ

ওয়ারেন্ট তামিল, মামলা নিষ্পত্তি, অবৈধ অস্ত্র-মাদক উদ্ধার, চোর-ডাকাত গ্রেফতার তথা গাজীপুর জেলার অপরাধ নিয়ন্ত্রন ও আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমুন্নত রাখতে অনবদ্য ভূমিকা রাখার স্বীকৃতিস্বরুপ
পুলিশ সুপার গাজীপুর জনাব এসএম শফিউল্লাহ্ বিপিএম ডিসেম্বর/২০২১ মাসে একটানা ৪র্থ বারের মতো ঢাকা রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার নির্বাচিত হন।

অদ্য ১৮/০১/২০২২ খ্রিঃ সকাল ১১.০০ ঘটিকায় ডিআইজি ঢাকা রেঞ্জ কার্যালয় আয়োজিত ডিসেম্বর/২১ মাসের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা
সভায় অপরাধ নিয়ন্ত্রন ও আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমুন্নত রাখার ক্ষেত্রে ঢাকা রেঞ্জের ১৩ টি জেলার মধ্যে শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার নির্বাচিত হওয়ায় ঢাকা রেঞ্জের সুযোগ্য ডিআইজি জনাব হাবিবুর রহমান বিপিএম(বার), পিপিএম(বার) মহোদয় পুলিশ সুপার গাজীপুর জনাব এসএম শফিউল্লাহ্ বিপিএম মহোদয়কে ক্রেস্ট ও সম্মাননা সনদ প্রদান করেন। এ সময় ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি(ক্রাইম) জনাব নুরেআলম মিনা বিপিএম(বার), পিপিএম, অতিরিক্ত ডিআইজি (প্রশাসন) জনাব জিহাদুল কবির, বিপিএম, পিপিএম
অতিরিক্ত ডিআইজি (অপস এন্ড ইন্টেলিজেন্স) জনাব মো: মাহবুবুর রহমান, পিপিএম(বার)
মহোদয়সহ রেঞ্জ অফিসের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং ১২ জেলার পুলিশ সুপারগন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য যে, ঢাকা রেঞ্জ কার্যালয় প্রদত্ত ১২ টি ক্যাটাগরীর মধ্যে গাজীপুর জেলা এককভাবে ৬ টি ক্যাটাগরিতে(পুলিশ সুপার, সার্কেল অফিসার, সাব ইন্সপেক্টর, ডিবি অফিসার, মাদক উদ্ধারকারী অফিসার ও এএসআই) শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করে। পুলিশ সুপার গাজীপুরের পাশাপাশি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(সদর সার্কেল) সানজিদা আফরিন শ্রেষ্ঠ সার্কেল অফিসার,
কালীগঞ্জ থানার এসআই মোঃ ইসলাম মিয়া, ডিবির এসআই ওবায়দুর রহমান ও জয়দেবপুর থানার এএসআই জুলহাস উদ্দিন ঢাকা রেঞ্জের যথাক্রমে শ্রেষ্ঠ এসআই, শ্রেষ্ঠ ডিবি অফিসার ও শ্রেষ্ঠ এএসআই নির্বাচিত হয়ে ডিআইজি ঢাকা রেঞ্জ মহোদয়ের নিকট থেকে ক্রেস্ট ও সম্মাননা সনদ গ্রহন করে।

আরো উল্লেখ্য যে, এস এম শফিউল্লাহ বিপিএম গত ২১ মার্চ ২০২১ খ্রিঃ গাজীপুর জেলায় পুলিশ সুপার হিসেবে যোগদানের পর থেকে ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রিঃ পর্যন্ত মাত্র ০৯ মাসের মধ্যে প্রত্যক্ষ দিকনির্দশনা ও তদারকির মাধ্যমে গাজীপুর জেলার মূলতবি মামলার সংখ্যা ৬৩৫টি থেকে হ্রাস করে ২৯২ টিতে রুপান্তর করেন
ও মূলতবী গ্রেফতারী পরোয়ানার সংখ্যা ৫৪৩২ টি হতে হ্রাস করে ৪১০৬ টিতে রুপান্তর করেন অর্থাৎ ৩৪৩ টি মূলতবী মামলা ও ১৩২৬ টি মূলতবী গ্রেফতারী পরোয়ানা নিষ্পত্তি করেন। এছাড়া তিনি অধিকাংশ ক্লুলেস ডাকাতি, খুন, দস্যুতা ও চাঞ্চল্যকর মামলা সমূহের রহস্য উদঘাটনসহ দুস্কৃতিকারীদের আইনের আওতায় এনে গাজীপুরবাসীর নিকট গাজীপুর জেলা পুলিশের ভাবমূর্তি উজ্জল করতে সক্ষম হন।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
error: Alert: Content selection is disabled!!