অপরাধ ও দূর্ঘটনালিড

কক্সবাজারের পেকুয়ায় র‌্যাব-১৫ এর অভিযানে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ আনসারুল ইসলাম টিপু বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড জালাল গ্রেফতার।

কক্সবাজার জেলার পেকুয়া থানাধীন রাজাখালী ইউনিয়নের ০৫ নং ওয়ার্ডস্থ উত্তর সুন্দরীপাড়া এলাকা হতে র‍্যাব-১৫, সিপিএসসি ক্যাম্প এর আভিযানিক দল ৩১/০৩/২০২২ খ্রি: আনুমানিক রাত ০২.৩০ ঘটিকায় টিপু বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড জালাল আহমদ (৩২), পিতা-মোঃ শরীফ, সাং-উত্তর সুন্দরীপাড়া, ০৫ নং ওয়ার্ড, ইউপি-রাজাখালী, থানা-পেকুয়া, জেলা- কক্সবাজার’কে তার নিজ গৃহ হতে আনুমানিক ১২০ গজ দূরবর্তী এলাকায় প্রতিবেশী জহির এর ঘর হতে লুকায়িত অবস্থায় গ্রেফতার করে। তখন উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে ঘরের উত্তরমুখী পুকুরের পার্শ্বে বিশেষভাবে লুকায়িত অবস্থা হতে ০৩ টি এসবিবিএল, ০২ টি ফ্লিন্টলক গান, ০১ টি দেশীয় পিস্তল, ০৮ রাউন্ড গুলি/কার্তুজ, ০১ রাউন্ড খালি খোসা, ০৩ টি রামদা উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত ব্যক্তি স্বীকার করে যে, সন্ত্রাসী কর্মকান্ড সাধন এবং অবৈধ অস্ত্র বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে সে অস্ত্র-গোলাবারুদসমূহ তার নিজ হেফাজতে লুকিয়ে রেখেছিল।

ধৃত ব্যক্তি দীর্ঘদিন যাবৎ অত্র এলাকায় অবৈধ অস্ত্র নিয়ে এলাকার লোকজনকে ভয়-ভীতি প্রদর্শনসহ বিভিন্ন প্রকার অপরাধমূল কর্মকান্ড করা এবং দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধ অস্ত্র ক্রয়-বিক্রয় করে আসছে মর্মে স্থানীয় সূত্রে জানা যায়। উল্লেখ্য যে, ধৃত আসামীর বিরুদ্ধে হত্যা, চাঁদাবাজি, মারামারি, জোর দখল, চুরি, ডাকাতি, মারাত্বক জখম, ভয়ভীতি প্রদর্শনসহ বিভিন্ন থানায় ০৯ টি মামলা রয়েছে, যার মধ্যে ০৩ টি মামলার গ্রেফতার ওয়ারেন্ট বিদ্যমান। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে পেকুয়া থানায় ০২ টি এবং চকরিয়া থানায় ০১ টি সাধারণ ডায়েরী লিপিবদ্ধ রয়েছে। মূলত টিপুর সরাসরি নেতৃত্বে স্থানীয় নিরীহ জনগণের উপর প্রতিনিয়ত লুটপাট, চিংড়ির প্রকল্প দখল, চাঁদাবাজি, হত্যা ও জখমসহ নানাবিধ অপকর্ম মাঠ পর্যায়ে জালালের মাধ্যমেই পরিচালিত হতো।

গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণার্থে কক্সবাজার জেলার পেকুয়া থানায় হস্তান্তর কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
error: Alert: Content selection is disabled!!